হুল উৎসব থেকে তির-ধনুক নিয়ে হামলা, তিরবিদ্ধ উপ-প্রধানের ভাই, শালবনি কোবরা ক্যাম্পে জওয়ানের আত্মহত্যা, করোনায় মৃতদের পরিবারকে দিতে হবে ক্ষতিপূরণ, কেন্দ্রকে নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের, কসবা কাণ্ডে অভিযুক্ত দেবাঞ্জন দেবকে মনোরোগী বলে দাবি করলেন আইনজীবী, বালি তোলা সহ নানা সমস্যার সমাধান করতে হবে বৈঠকে বললেন মন্ত্রী মানস ভুঁইয়া, পরিত্যক্ত পিপিই কিট পরে শহরের রাস্তায় ঘুরছে মানসিক ভারসাম্যহীন, আতঙ্ক মেদিনীপুরে, জনপ্রিয় অভিনেতা বর্তমানে মাছ ব্যবসায়ী, হলফনামা জমা দেবার ক্ষেত্রে জরিমানা দিতে হল পাঁচ হাজার টাকা, আজ ঘোষণা হতে পারে নারদ মামলার রায়, বুধবার থেকে পনেরো শতাংশ ভাড়া বাড়ছে ওলা উবেরের,

Latest Trending Online News Portal : Bongobani.com

Sports News District News National News Updates

এই মুহূর্তে

করোনা মোকাবিলায় নয়া অ্যাপ ‘ICMS’

বঙ্গবাণী ব্যুরো ডেস্ক:করোনা ভাইরাসের জেরে তটস্থ রাজ্যবাসী।করোনা আবহের মধ্যে রাজ্য সরকার, প্রশাসনের কাছে সবথেকে বড়ো চ্যালেঞ্জের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে হাসপাতালগুলিতে বেড এবং অক্সিজেনের ঘাটতি। এবারে করোনা মোকাবিলায় স্বাস্থ্য দফতরের পক্ষ থেকে কাজে লাগানো হচ্ছে নয়া প্রযুক্তি সমৃদ্ধ একটি মোবাইল অ্যাপ যার নাম দেওয়া হয়েছে- ICMS(Integrated covid management system)।এই অ্যাপের মাধ্যমে রাজ্যের কোন হাসপাতালে কটা বেড খালি রয়েছে,কোথায় অক্সিজেন মজুত রয়েছে সমস্ত তথ্যই মিলবে।সাধারণ মানুষের কাজে এই নয়া অ্যাপ যে কার্যকরী ভূমিকা গ্রহণ করবে তা নিয়ে আশাবাদী রাজ্য সরকার থেকে শুরু করে প্রশাসনিক কর্মকর্তারা।

প্রসঙ্গত, গত বছর করোনা অতিমারীর মোকাবিলায় কেন্দ্রীয় সরকার এবং রাজ্য সরকারের পক্ষে একাধিক মোবাইল অ্যাপ চালু করা হয়।তার মধ্যে কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে ‘আরোগ্য সেতু’ অ্যাপটি বেশ জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। পাশাপাশি রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকেও রাজ্যের আনাচে কানাচে করোনা ভাইরাসের হদিশ মিলতে ‘সন্ধানে ‘ নামক একটি অ্যাপ চালু করা হয়েছিল।কোথাও কোনো করোনা রোগীর হদিশ মিললেই ওই অ্যাপের মাধ্যমে পৌঁছে যেত রাজ্য সরকারের কাছে।, তৎক্ষণাৎ স্বাস্থ্য কর্মীরা তৎপর হয়ে তাদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করত।

এ বছর করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বেসামাল রাজ্যের অন্তবর্তী পরিস্থিতি। দৈনিক আক্রান্ত হচ্ছে হাজার হাজার মানুষ। অক্সিজেন বেডের অভাবে মৃত্যুও হচ্ছে বেশ কয়েকজনের।এই পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে গতকাল রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের পক্ষ থেকে একটি ভার্চুয়াল বৈঠকের আয়োজন করা হয় জেলা টাস্কফোর্সকে সঙ্গে নিয়ে।বৈঠকে শেষে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক নিমাইচন্দ্র মন্ডল জানান,”জেলার প্রতিটি হাসপাতালে পর্যাপ্ত পরিমাণে অক্সিজেন মজুত রয়েছে।এ বিষয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির কথা ভেবে ব্লক ভিত্তিক নোডাল অফিসারও নিয়োগ করা হচ্ছে। যাদের কাজই হবে সকল ব্লক গুলির করোনা পরিস্থিতি নিজেদের আয়ত্তে রাখা।”গতকাল ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই নয়া অ্যাপ ICMS -র কথা স্বাস্থ্য দফতরের মুখ্য আধিকারিকের তরফে ঘোষনা করা হয়। আজ থেকেই গুগল পলে স্টোরে মিলবে এই নয়া অ্যাপ।যার মাধ্যমে যাবতীয় তথ্য পেয়ে যাবেন আম জনতা।সেই কারণেই এই দ্বিমুখী কৌশল রাজ্যের। যা ইতিমধ্যেই প্রশংসা কুড়িয়ে ফেলেছে ওয়াকিবহাল মহলের কাছে।
বিশেষজ্ঞরা দাবি করছেন,এই রোগের মোকাবিলায় নয়া অ্যাপটি অনেকখানি সহজ হয়ে মানুষের কাজে উপকারে লাগবে। যা সত্যিই প্রশংসনীয়।

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *