Latest Trending Online News Portal : Bongobani.com

Sports News District News National News Updates

এই মুহূর্তে জেলা

‘মিডিয়ার দিকে আঙুল না তুলে নিজেদের কাজে মন দিন’ এমনই বার্তা সুপ্রিম কোর্টের

বঙ্গবাণী ব্যুরো ডেস্ক: গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভ হল গণমাধ্যম । যার মধ্যে আছে মিডিয়া, প্রেস এবং সংবাদমাধ্যম। তাদের কাজই হল সরকারকে, প্রধানমন্ত্রী, মুখ্যমন্ত্রী, আমলা পুলিশকে প্রশ্ন করে তাদের ভুল সবার সামনে নিয়ে আসা। সেই প্রশ্ন করার অধিকার তাদের ভারতীয় সংবিধান দিয়েছে। কিন্তু ভারতে কয়েক মাস ধরে গণতন্ত্রের বাকস্বাধীনতার ওপর যেভাবে ধারাবাহিকভাবে আঘাত আসছে তাতে দেশে স্বাধীনভাবে গণতন্ত্র টিকিয়ে রাখা সংকটের মুখে পড়ছে। সাংবিধানিক সংস্থাগুলি একের পর এক অভিযোগের তীর ছুঁড়ছে সংবাদ মাধ্যমগুলি ওপর। ফলে যাদের কাজই অন্যায়ের বিরুদ্ধে আওয়াজ তোলা তারাই আজ পড়ছেন সংকটের মুখে। এই বিষয়ের সুপ্রিম কোট সরব হয়েছেন এদিন।

নির্বাচন কমিশনের অভিযোগে ক্ষুব্ধ হয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট। সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় এর নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ বলেন,” সংবিধানের ১৯ নম্বর ধারায় কেবলমাত্র ভারতীয় নাগরিকদের এই বাক স্বাধীনতার অধিকার দেওয়া হয়নি সেই অধিকার এর আওতায় সংবাদমাধ্যমও কিন্তু রয়েছে। আমরা কখনোই জোর করে সংবাদমাধ্যমের মুখ চুপ করাতে পারি না ।তাই তাদেরকে শৃঙ্খলাতার বেড়াজালে না জড়িয়ে দেশের করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলা করার কথা চিন্তা করুন আপনারা।মন দিন নিজেদের কর্ম ক্ষেত্রে”।

প্রসঙ্গত, দেশের করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহভাবে বেড়েই চলেছে ।কোভিড সংক্রমনের দ্বিতীয় ঢেউয়ে লাগাম দিতে অনেক রাজ্যে নাইট কার্ফু, লকডাউন ,আংশিক লকডাউন জারি করা সত্ত্বেও কোন কিছুতেই দমানো যাচ্ছেনা এই মারণ ভাইরাসকে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী তথ্য অনুসারে ,গত ২৪ ঘন্টায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৩, ৮২, ৩১৫ জন,পাশাপাশি মৃত্যু হয়েছে ৩৭৮০ জনের। প্রত্যহ করোনা আক্রান্তের পাশাপাশি মৃত্যুহারও হু হু করে বাড়ছে। এরমধ্যে আবার বিশেষজ্ঞরা বলছেন ,করোনার তৃতীয় ঢেউ খুব শীঘ্রই আছড়ে পড়তে চলেছে দেশে। গত ২৬ এপ্রিল মাদ্রাজ হাইকোর্ট দেশের করোনার বাড়বাড়ন্ত প্রসঙ্গে সম্পূর্ণ দায়ভার চাপিয়ে দেয় নির্বাচন কমিশনের ওপর। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই নির্বাচন কমিশন সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়।

অভিযোগ দায়ের করেন হাইকোর্টের এমন মন্তব্যের বিরুদ্ধে। তারা বলেন, ‘যে সমস্ত রাজ্যে নির্বাচন হচ্ছিল তাদের সরকারের সমস্ত রকমের ক্ষমতা ছিল নিজেদের রাজ্যের নির্বাচনী প্রচার থামানোর। সে ক্ষেত্রে আমাদের কোন ভূমিকায় ছিল না’। নির্বাচন কমিশনের সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতেই এদিন সুপ্রিম কোর্ট বলে ‘নির্বাচন কমিশনের করা অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন’। উল্টে কড়া ভাষায় নিজেদের দায়িত্ব পালনের দিকে নজর দেওয়ার জন্য আদেশ দেন।

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *