হুল উৎসব থেকে তির-ধনুক নিয়ে হামলা, তিরবিদ্ধ উপ-প্রধানের ভাই, শালবনি কোবরা ক্যাম্পে জওয়ানের আত্মহত্যা, করোনায় মৃতদের পরিবারকে দিতে হবে ক্ষতিপূরণ, কেন্দ্রকে নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের, কসবা কাণ্ডে অভিযুক্ত দেবাঞ্জন দেবকে মনোরোগী বলে দাবি করলেন আইনজীবী, বালি তোলা সহ নানা সমস্যার সমাধান করতে হবে বৈঠকে বললেন মন্ত্রী মানস ভুঁইয়া, পরিত্যক্ত পিপিই কিট পরে শহরের রাস্তায় ঘুরছে মানসিক ভারসাম্যহীন, আতঙ্ক মেদিনীপুরে, জনপ্রিয় অভিনেতা বর্তমানে মাছ ব্যবসায়ী, হলফনামা জমা দেবার ক্ষেত্রে জরিমানা দিতে হল পাঁচ হাজার টাকা, আজ ঘোষণা হতে পারে নারদ মামলার রায়, বুধবার থেকে পনেরো শতাংশ ভাড়া বাড়ছে ওলা উবেরের,

Latest Trending Online News Portal : Bongobani.com

Sports News District News National News Updates

এই মুহূর্তে

কোভিড পজিটিভকে দিয়ে ভোটের ডিউটি

বঙ্গবাণী ব্যুরো ডেস্ক:করোনায় কাঁপছে গোটা দেশ।আর সেই করোনা আবহের মধ্যেই রাজ্যজুড়ে চলছে আজ শেষ দফায় নির্বাচন প্রক্রিয়া।করোনা সুরক্ষা বিধি মেনে যাতে সকলে নির্বাচনে সামিল হতে পারেন তার জন্য ইতিমধ্যেই কমিশনের তরফে জারি করা হয়েছে একাধিক নির্দেশিকা।নির্দেশিকায় স্পষ্টতই বলা হয়েছে করোনায় আক্রান্ত কোনো ব্যক্তি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারবেন না।কিন্তু পুরাতন মালদার সাহাপুর ধরা পড়ল এক অন্য চিত্র। সাহাপুরের ১৭০ নং বুথে করোনায় আক্রান্ত আশা কর্মীকে দিয়েই চলছে ভোটের ডিউটি। যা শুনলেই গা শিউরে উঠবে নিশ্চয়ই!ভাববেন এটাও কী সম্ভব? কিন্তু এটাই সত্য। ভোট করোনা বিধি কে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে রমরমিয়ে চলছে ওই আশা কর্মীর বুথের ডিউটি।এতক্ষণে ওই বুথে ৪০ শতাংশ ভোট হয়ে গেছে হয়ত।সকলের চোখে ধুলো দিয়েই ওই আশা কর্মী সকাল থেকে বুথে করে গেছেন তার ডিউটি।

বুথের দায়িত্বপ্রাপ্ত ওই আশা কর্মী এ বিষয়ে জানিয়েছেন ,গত ২৬ তারিখ করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে তাঁর তৎক্ষনাৎ সে তাঁর রিপোর্ট নিয়ে গিয়ে জমা দেন বিডিও-র কাছে।তবে সে বিষয়ে বিন্দুমাত্র কর্ণপাত করেননি বিএমওএইচ এবং বিডিওর অফিসার।উল্টে তাকেই শো কজ নোটিশ ধরিয়ে দেয়।তাই বাধ্য হয়েই সে করোনায় আক্রান্ত হওয়া সত্বেও ভোটের কাজে এদিন তাকে বুথে আসতে হয়। এই ঘটনা সকলের প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই কার্যত শোরগোল পড়ে গেছে রাজ্যের রাজনৈতিক মহলের অন্দরে। সকলে আঙুল তুলছে নির্বাচন কমিশনের ওপর।

প্রসঙ্গত , ভয়াবহ ভাবে করণা পরিস্থিতিতে ভোটগ্রহণ কে কেন্দ্র করে একাধিক অভিযোগের তীর গিয়ে পড়েছে নির্বাচন কমিশনের ওপর কলকাতা হাইকোর্ট থেকে শুরু করে মাদ্রাজ হাইকোর্টের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দার মুখে পড়েছে কমিশনের আধিকারিকরা ।এমনকি তাদের বিরুদ্ধে খুনের মামলা রুজু করার হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয়েছে । এই পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে কমিশনের তরফ থেকে একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করা হলেও কোথাও যেন ফাঁক থেকেই গেছে বলে এমনটাই মনে করছেন বিশেষজ্ঞমহল।এ বিষয়ে জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ কাজল কৃষ্ণ বণিক বলছেন “ঘটনাটি খুবই দুর্ভাগ্য জনক। উনি আগেই জানিয়েছিলেন তাঁর রিপোর্ট পজিটিভ তা সত্ত্বেও তাকে কেন ডিউটিতে যেতে হল সে বিষয়ে তিনি ভাল বলতে পারবেন আমার মনে হয় না কোন সংবেদনশীল প্রশাসক জোর করে তাকে ভোটের ডিউটিতে নিযুক্ত করেছে বলে। আমরা জেনেছি ইতিমধ্যেই তিনি গত ২৬তারিখে করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন কিন্তু তা সত্বেও তিনি কেন কমিশনের কাছ থেকে অব্যাহতি লেটার তিনি পান নি কেন সে বিষয়ে তদন্ত করা উচিত”। এখন কমিশনের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে কি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয় সেটাই দেখার বিষয়।

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *