Latest Trending Online News Portal : Bongobani.com

Sports News District News National News Updates

এই মুহূর্তে জেলা

রাজ্য জুড়ে সবুজ ঝড়ের মধ্যেও খড়্গপুর সদরে জয়ী বিজেপির হিরণ

বঙ্গবাণী ব্যুরো ডেস্ক,পশ্চিম মেদিনীপুরঃ দিদির সবুজ ঝড়েতৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া অধিকাংশ দলবদলুরা যখন কুপোকাত, ঠিক তখন রাজ্য জুড়ে প্রচন্ড দিদি হাওয়ার কাছেও বিজেপির হারানো গড় দিলীপ ঘোষের হাত ধরে পুনঃরুদ্ধার করলেন অভিনেতা হিরন্ময় চট্টোপাধায়। খড়্গপুর সদর বিধানসভা কেন্দ্রে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী প্রদীপ সরকারকে তিন হাজারের বেশি ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করে জয়ী হন বিজেপি প্রার্থী হিরণ্ময় চট্টোপাধায়।

অভিনেতা হিরণও তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় সবং কেন্দ্রে দলবদলু বিজেপি প্রার্থী অমূল্য মাইতি ও নারায়ণগড়ের দলবদলু বিজেপি প্রার্থী রমাপ্রসাদ গিরি পরাজিত হয়েছেন।  গণনার প্রথম দিকে বেশকিছু রাউণ্ড এগিয়ে থাকার পর, মাঝে কয়েক রাউন্ড পিছিয়ে যায় বিজেপি প্রার্থী হিরণ্ময় চট্টোপাধ্যায়। গণনাকেন্দ্র ছেড়ে বেশকিছুক্ষণের জন্য চলেও যান। মাঝে কয়েক রাউণ্ড পিছিয়ে পড়লেও আত্মবিশ্বাসের অভাব ছিলনা তাঁর। বেরিয়ে যাওয়ার সময় বিজেপি প্রার্থী হিরণ বলেন, ‘আমার আমার দৃড় বিশ্বাস আমি জিতবই। শচিন দেণ্ডুলেকর শেষ বলে ছয় মেরেও দলকে জিতিয়েছে। এখনো অনেক বাকি। আমি জিতবই।’

কয়েক শেষের দিকে ফের তৃণমূল প্রার্থী প্রদীপ সরকারকে পিছনে ফেলে এগিয়ে যায় বিজেপি প্রার্থী অভিনেতা হিরণ। এই খবর আসতে না সতেই কিছুক্ষণের মধ্যেই গণনাকেন্দ্রে এসে পৌঁছান হিরণ। জয় নিশ্চিত হওয়ার পর ভি দেখিয়ে বিজেপি প্রার্থী হিরণ্ময় চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘যেই জিতুক, আর যারাই সরকার গড়ুক সরকার যেন মানুষের কাজে, উপকারে লাগে। রাজ্য সরকার, কেন্দ্রের সরকার সকলে মিলে যেন মানুষের জন্য কাজ করে। গরীব মানুষ সরকারের দিকে তাকিয়ে থাকে। তাঁদের সরকার ছাড়া কাকে বলার আছে? তাঁদের চাওয়া পাওয়া সরকারের কাছেই। খড়্গপুরের মানুষ আমাকে জিতিয়েছেন। আমি খড়্গপুরের মানুষের জন্য কাজ করার চেষ্টা করবো। এখানকার মানুষের সমস্যার কথা বিধানসভায় তুলে ধরবো।’

পরাজয়ের পর গণনা কেন্দ্রের মধ্যে মুষড়ে পড়েন তৃণমূল প্রার্থী প্রদীপ সরকার। তিনি বলেন, ‘এমন ফলাফল হবে ভাবতেই পারিনি। মানুষের রায় মাথা পেতে মেনে নেব।’ ২০১৬ সালে খড়্গপুরে চাচা জ্ঞানসিং সোহন পালকে হারিয়ে জেতেন বিজেপি দিলীপ ঘোষ। ২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনে ব্যাপক ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করেন দিলীপ ঘোষ। তারপর ১৯ সালে উপ নির্বাচনে খড়্গপুরে বিজেপি প্রার্থীকে হারিয়ে বিপুল ভোটে জয়লাভ করেন তৃণমূল প্রার্থী প্রদীপ সরকার। এবারের নির্বাচনে রাজ্য জুড়ে তৃণমূলের জয়ের মধ্যেও খড়্গপুরে পরাজিত হলেন, তৃণমূলের প্রদীপ সরকার।

খড়্গপুরের এক তৃণমূল নেতা বলেন, ‘বিজেপি প্রদীপ সরকারকে হারাতে পারেনি। দলেই লোকেরাই প্রদীপ সরকারকে হারিয়েছে। খড়্গপুরে তৃণমূলের গোষ্ঠী দ্বন্দ্ব চরমে উঠেছিল। এত সবুজ হাওয়ার মধ্যেও খড়্গপুরে বিজেপি প্রার্থীর জয়ের পিছনে অন্য কারণ খুঁজছে তৃণমূল নেতৃত্ব। জেলায় ১৫ আসনের মধ্যে খড়্গপুর সদর ও ঘাটাল ছাড়া বাকি ১৩ টিতেই তৃণমূল প্রার্থীরা এগিয়ে। ফলাফল নিয়ে পর্যালোচনা করা হবে বলে জানান জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব।

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *