Latest Trending Online News Portal : Bongobani.com

Sports News District News National News Updates

এই মুহূর্তে রাজ্য

এক মাসের ছুটি শেষে আবার কাজে ফিরছে আইপ্যাক

বঙ্গবাণী ব্যুরো নিউজ :২ মে বিধানসভা ভোটে তৃণমূল বিপুল ভোটে জয় যুক্ত হবার পর তার পরের দিন থেকেই এই সংস্থার সমস্ত কর্মীকে দেওয়া হয় সবেতন এক মাসের ছুটি । হ্যাঁ আমরা প্রশান্ত কিশোরের সংস্থা আইপ্যাক এর কথাই বলছি। বিধানসভা ভোটের ফলাফল ঘোষণার দিনে আইপ্যাক সংস্থার স্রষ্টা প্রশান্ত কিশোর জানিয়ে দিয়েছিলেন তিনি আর ভোট কৌশলীর কাজ করবেন না , তবে তার সংস্থা আগের মতোই কাজ করবে।

২০১৯ সালের জুলাই মাসে তৃণমূলের পরামর্শদাতা হিসেবে নিয়োগ এরপরই প্রশান্ত কিশোরের লক্ষ্য ছিল ‘মিশন ২০২১’। চলতি বছরের নির্বাচনে তৃণমূলকে জয়যুক্ত করতে তাদের সংস্থার ৫০০ জনের একটি দল দু’বছর ধরে বাংলার প্রতিটি কোনায় কোনায় গিয়ে কাজ করেছে। অনেকেই মনে করেন তৃণমূলের সাফল্যের পিছনে সেই পরিশ্রমও অনেকটাই জড়িয়ে আছে। তাই ভোট পর্ব মিটতেই এই সংস্থায় কর্মরত সকল কর্মীদের সবেতন এক মাসের ছুটি দেওয়া হয়েছিল। চলতি সপ্তাহে সেই ছুটি শেষ হয়েছে। এবং ছুটি শেষ হতেই তারা আবার তৃণমূলের হয়ে ময়দানে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

আইপ্যাক প্রতিনিধিদের ধারণা আগামী শনিবার তৃণমূলভবনে দলের সাংগঠনিক বৈঠকের পর তাদের ধারণা স্পষ্ট হবে, যে তাদের কখন কোথায় কিভাবে কাজ করতে হবে।আইপ্যাক সংস্থার প্রতিনিধি জানিয়েছেন , “আমাদের কাজ নির্ভর করে পোস্টিং এর ওপর। যাকে যে এলাকার দায়িত্ব দেওয়া হয়, তাকে সেই এলাকার দায়িত্ব নিয়ে কাজ করতে হয়। গত দু’বছর ধরে আমরা সেই নির্দেশ মেনে কাজ করেছি। তাই যতক্ষণ না কোনো নির্দিষ্ট জেলা বা এলাকার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, এবং পাশাপাশি কাজের ধরন বুঝিয়ে দেওয়া হচ্ছে ততক্ষন আমাদের অপেক্ষা করতেই হবে। “

রাজনীতিকদের অনুমান, বিধানসভা নির্বাচনে সাফল্যের পর এবার তৃণমূল এবং আইপ্যাকের লক্ষ্য ‘দিল্লি চলো’ । কারণ বিজেপিকে বাংলায় আসতে না দেওয়ার ফলে ইতিমধ্যেই দলের একাংশ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়কে আগামী লোকসভা ভোটে প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে দেখতে চাইছেন। আইপ্যাকের দিদিকে বলো , এবং বাংলা নিজের মেয়েকেই চায়, বাংলার গর্ব মমতা এই কর্মসূচি গুলি যে তৃণমূলের সাফল্য এনে দিতে সফল হয়েছে তা সকলেই জানে। তবে আইপ্যাকের প্রতিনিধিরা মনে করছেন এবার তাদের কাজের ধরন ভিন্ন হবে। কারণ সর্বভারতীয় ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিকল্প হয়ে উঠতে সম্পূর্ণ অন্য ধারার রণনীতি স্থির করতে হবে।

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *