www.bongobanii.com, www.bongobanii.com, www.bongobanii.com, www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com, শালবনি কোবরা ক্যাম্পে জওয়ানের আত্মহত্যা, করোনায় মৃতদের পরিবারকে দিতে হবে ক্ষতিপূরণ, কেন্দ্রকে নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের, কসবা কাণ্ডে অভিযুক্ত দেবাঞ্জন দেবকে মনোরোগী বলে দাবি করলেন আইনজীবী, বালি তোলা সহ নানা সমস্যার সমাধান করতে হবে বৈঠকে বললেন মন্ত্রী মানস ভুঁইয়া, পরিত্যক্ত পিপিই কিট পরে শহরের রাস্তায় ঘুরছে মানসিক ভারসাম্যহীন, আতঙ্ক মেদিনীপুরে, জনপ্রিয় অভিনেতা বর্তমানে মাছ ব্যবসায়ী,

Latest Trending Online News Portal : Bongobani.com

Sports News District News National News Updates

রাজ্য

বিরোধী দলনেতা কে? চর্চা তুঙ্গে

বঙ্গবাণী ব্যুরো ডেস্ক:  দীর্ঘ কয়েক মাসের লড়াই শেষে অবশেষে বাংলার সিংহাসন জয় করে নিয়েছেন তৃণমূল।বুধবারই তৃতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শপথ গ্রহণ শেষ হওয়া না মাত্রই তিনি ফিরে গেছেন মুখ্যমন্ত্রীর চেনা ছন্দে। অপরদিকে বঙ্গে ৭৭ টি আসন পেয়ে বিরোধী দল হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি। ভোটের আগেই কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের মতনুসারে বাংলায় ভোট হয়েছে মমতা বনাম মোদীর নামেই। মমতা তাতে বিজয়ী হলেও প্রধান বিরোধী দল হিসেবে নাম উঠে এসেছে বিজেপির।বিরোধী দলনেতা কে হবে?বিজেপির অন্দরের আলোচনা শুভেন্দু না মকুল ? কারন নির্বাচনের সময় থেকেই দল এঁদের গুরুত্ব দিয়েছে। এরই পাশাপাশি একটা অংশের দাবি, তৃণমূল থেকে আসা কাউকে বিরোধী দলনেতা না করে বিজেপি বা সংঘ পরিবার থেকে উঠে আসা কাউকে দেওয়া হোকএ দায়িত্ব।

মমতার বিরুদ্ধে এখন রাজ্য বিজেপির প্রধান মুখ হিসেবে নির্বাচিত হবেন কে তা নিয়ে টানাপোড়েন শুরু হয়েছে বিজেপি নেতৃত্বের কাছে এখনও অবধি দু’জনের মুখ ।একদিকে মমতার একসময়ের ডান হাত সদ্য বিজেপিতে যাওয়া শুভেন্দু অধিকারী অন্যদিকে এক সময়ে তৃণমূলের সেকেন্ড ইন কম্যান্ড মুকুল রায়। দুজনেই এবারের বিধানসভা নির্বাচনে কঠিন লড়াইয়ে মধ্যে থেকেও শেষ হাসি হেসেছেন। তবে সূত্রের খবর, এখনও পর্যন্ত বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব শুভেন্দুকেই অগ্রাধিকার দিচ্ছেন। কারণ হিসেবে দলের অভ্যন্তরে আলোচনা হয়েছে, তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতো একজন হেভিওয়েট নেত্রীকে নন্দীগ্রামে পরাস্ত করেছেন তিনি।

সেই প্রসঙ্গ টেনে এনে নব নির্বাচিত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি তিনি এদিনেও।দলের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার পর প্রাথমিক প্রতিক্রিয়ায় শুভেন্দু অধিকারি বলেন, ‘ভোটে হেরেও এ রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রী হলেন তিনি।এমন ঘটনা আগে কিন্তু ঘটেনি রাজ্যে”।২১৩ জন বিধায়কের মধ্যে একজনকেও পাওয়া গেল না মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে।এই জন্যই বলি ওটা একটা লিমিটেড কোম্পানি।’ তাঁর এই মন্তব্যর পরেই বেশ নড়ে চড়ে বসেছে বিজেপির দলীয় কর্ম কর্তারা। তাদের মধ্যে  অনেকেই বিজেপির বিরোধী নেতার নাম ঘোষণা পূর্বেই শুভেন্দুকেই উপযুক্ত দলনেতা বলে মনে করছেন  অনেকে। অবশ্য অনেকে মুকুল রায়ের পূর্বের অভিজ্ঞতার প্রসঙ্গে সরব হয়ে প্রকাশ্যে এনেছেন তাঁরও নাম।এখন বিজেপির শীর্ষ নেতারা এই দুই হেভিওয়েট নেতাদের মধ্যে বিরোধী নেতা হিসেবে নাম ঘোষণা করেন সেই দিকেই আপাতত তাকিয়ে রাজনৈতিক মহলের একাংশ।তবে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এবিষয়ে পরিস্কার করে কোন কথাই বলেননি। শুধু জানিয়েছে, ‘দলে আলোচনা চলছে।’

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *