www.bongobanii.com, www.bongobanii.com, www.bongobanii.com, www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com www.bongobanii.com, শালবনি কোবরা ক্যাম্পে জওয়ানের আত্মহত্যা, করোনায় মৃতদের পরিবারকে দিতে হবে ক্ষতিপূরণ, কেন্দ্রকে নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের, কসবা কাণ্ডে অভিযুক্ত দেবাঞ্জন দেবকে মনোরোগী বলে দাবি করলেন আইনজীবী, বালি তোলা সহ নানা সমস্যার সমাধান করতে হবে বৈঠকে বললেন মন্ত্রী মানস ভুঁইয়া, পরিত্যক্ত পিপিই কিট পরে শহরের রাস্তায় ঘুরছে মানসিক ভারসাম্যহীন, আতঙ্ক মেদিনীপুরে, জনপ্রিয় অভিনেতা বর্তমানে মাছ ব্যবসায়ী,

Latest Trending Online News Portal : Bongobani.com

Sports News District News National News Updates

রাজ্য

শপথের পরে মুখ্যমন্ত্রীকে দায়িত্ব স্মরণ করালেন রাজ্যপাল

বঙ্গবাণী ব্যুরো ডেস্ক: মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে তৃতীয়বারের জন্য শপথ নেবার পরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে পাশে দাঁড় করিয়ে দায়িত্ব স্মরণ করালেন রাজ্যপাল। রাজ্য জুড়ে চলা হিংসা বন্ধে প্রশাসন কে সক্রিয় ভূমিকা পালন করার কথা বললেন তিনি। পাল্টা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও রাজ্যপাল কে জানিয়ে দেন, তিনমাস রাজ্যের হাতে ছিল না আইন শৃঙ্খলা।এদিন শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানের আগে রাজ্যপাল জগগীপ ধনকর একটি ট্যুইটে কটাক্ষের সুরে বিঁধেছেন।ট্যুইটে রাজ্যপাল উল্লেখ করেছেন, ‘এরকম হিংসার ঘটনা গণতন্ত্রের  পক্ষে লজ্জাজনক। রাজ্যের আইন শৃঙ্খলার চরম অবনতি ঘটেছে।এ মন ঘটনা একেবারেই অবহেলা করার মতো নয়’।

শপথবাক্য পাঠ করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

 ২ মে বঙ্গে নির্বাচনের ফল ঘোষণা হওয়ার পর পরই রাজ্যজুড়ে নজরে আসে বিক্ষিপ্ত হিংসা-সংঘর্ষের ঘটনা।তারই প্রতিবাদে রাজ্যজুড়ে সোচ্চার হন বিজেপির দলীয় কর্মী সমর্থকরা। রাজ্যপাল জগদীপ ধনকরও রাজ্যের এহেন পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে  প্রতিবাদে সরব হয়ে ওঠেন। গতকাল তিনি ট্যুইটে লেখেন,”রাজনৈতিক হিংসা, খুন,বন্ধ করতে হবে প্রশাসনকে। এসব গণতন্ত্রের লজ্জা । বিশ্বের নানা প্রান্তে থাকা বাঙালিরা এ বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। শুধুমাত্র বাংলাতেই কেন ভোট পরবর্তী হিংসা? কেন হচ্ছে গণতন্ত্রের উপর এই হামলা ?”

 গতকালের এই পোস্টটি শেয়ার হওয়া মাত্রই কার্যত শোরগোল পড়ে যায় রাজ্যের শাসকদলের অন্দরে। এদিনের শপথ গ্রহণের শেষে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ধনকরকে পাশে নিয়ে একথা স্পষ্টতই ঘোষণা করে দেন ভোট পরবর্তী হিংসা রুখতে সব রকমের কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করতে চলেছে সরকার যাতে রাজ্যের কোনো প্রান্তে এমন হিংসার ঘটনা আর না ঘটে। একইসঙ্গে,  তিনি সমস্ত রাজনৈতিক দলগুলির কর্মীদের শান্ত ও সংযত থাকার বার্তাও দেন। এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কার্যত হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘কেউ হিংসা ছড়ানোর চেষ্টা করতে তাকে রেয়াত করা হবে না, সে তিনি যে দলেরই হোক না কেন। কারুর কোন অভিযোগ থাকলে থানায় গিয়ে এফআইআর করুন। পুলিশ ব্যবস্থা নেবে। কিন্তু আইন নিজের হাতে তুলে নেওয়া কোনভাবেই বরদাস্ত করা হবে না’

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *