Latest Trending Online News Portal : Bongobani.com

Sports News District News National News Updates

বিতর্ক রাজ্য স্বাস্থ্যের খুঁটিনাটি

স্টেরয়েডের যথেচ্ছ ব্যবহার, ক্ষুব্ধ স্বাস্থ্যসচিব

বঙ্গবাণী ব্যুরো নিউজ :ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের উপসর্গ দেখা দিলেই প্রথম দিন থেকে স্টেরয়েড ব্যবহারের পরামর্শ দিচ্ছেন বেশ কয়েকজন ডাক্তার। একদিন নয়, বরং ১৪-১৫ দিন বা দুইমাস টানা স্টেরয়েড ব্যবহারের পরামর্শ দিচ্ছেন অনেকেই। এমনিতেই করোনা আবহে সুগার আক্রান্ত রোগীরা সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন। স্বাস্থ্যভবনে গত কয়েকদিন ধরেই এই যথেচ্ছভাবে স্টেরয়েড ব্যবহারের রিপোর্ট আসছে। যেখানে স্টেরয়েড পাঁচ- সাত দিন ব্যবহার করা যায় সেখানে প্রায় দুইমাস ব্যবহার করা হচ্ছে। বাংলাতেও বহু ডাক্তাররা এই ভুল পরামর্শ দিচ্ছেন।

স্টেরয়েডের অধিক ব্যবহারের ফলেই নাকি সৃষ্টি হচ্ছে মিউকরমায়সিস। স্বাস্থ্যসচিব নারায়ণ স্বরূপ নিগম এই বিষয়ে নিয়মাবলী মেনে ব্যবহার করার অনুরোধ করেছেন সকলকে। স্বাস্থ্যদফতর আয়োজিত স্বাস্থ্য বিষয়ক একটি ওয়েবিনারে স্বাস্থ্য অধিকর্তা ডাক্তার অজয় চক্রবর্ত্তী এই ব্যপারে অন্যান্য ডাক্তারদের পরামর্শ দিয়েছেন। কোভিডে আক্রান্তের সংখ্যা যখন ঊর্ধ্বমুখী তখন অতিরিক্ত স্টেরয়েড ব্যবহারে সুগার রোগীর দেহে ডায়াবেটিস ৪০০-৫০০ হয়ে যাচ্ছে বলে মনে করছেন কোভিড টাস্ক ফোর্সের সদস্য গ্যাসট্রোপ এনটেরোলজিস্ট সত্যপ্রিয় দে সরকার। আর ডায়াবেটিস বাড়লেই ধরা দিচ্ছে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস।

কিন্তু দোষারোপ করে মেটেনি ব্যপার। কেন্দ্র রাজ্য মত পার্থক্য যে চিকিৎসাক্ষেত্রে সাড়া ফেলবে না এমন নয়। পশ্চিমবঙ্গ ডাক্তার ফোরামের শীর্ষ কর্তা ডাঃ রাজীব পাণ্ডে জানিয়েছেন রাজ্য ও কেন্দ্রের স্বাস্থ্য ব্যবস্থার নিয়মাবলী পৃথক। সুতরাং চিকিৎসা করতে কার গাইডলাইন মেনে চলা হবে সেই নিয়েও বহুবার উঠেছে প্রশ্ন।

স্বাস্থ্য দফতর থেকে বহু নিয়ম এবং সতর্কতা জারি করা হয়েছে আগেই। অক্সিজেনের পরিমাণ ৯৫ এর থেকে কমে গেলে, জ্বর তিনদিন পরেও না কমলে, কাশি বাড়লে অল্প ডোজে ব্যবহার করা যেতে পারে স্টেরয়েড। কিন্তু তার বদলে বহুদিন ধরে স্টেরয়েডের ব্যবহার শরীরে একদিকে সুগারে বাড়াচ্ছে ডায়াবেটিস, সাথে বাসা বাঁধছে কালো ছত্রাক। শুধু স্টেরয়েড নয়, একইসাথে অপব্যবহার চলছে মেরোপেনাম, হেপারিন ইনজেকশনের।

মুশকিল হচ্ছে ডাক্তারদের মধ্যেই যদি মতবিরোধ হয়ে যায় তাহলে সাধারণ মানুষ কার কাছে যাবে?

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *