হুল উৎসব থেকে তির-ধনুক নিয়ে হামলা, তিরবিদ্ধ উপ-প্রধানের ভাই, শালবনি কোবরা ক্যাম্পে জওয়ানের আত্মহত্যা, করোনায় মৃতদের পরিবারকে দিতে হবে ক্ষতিপূরণ, কেন্দ্রকে নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের, কসবা কাণ্ডে অভিযুক্ত দেবাঞ্জন দেবকে মনোরোগী বলে দাবি করলেন আইনজীবী, বালি তোলা সহ নানা সমস্যার সমাধান করতে হবে বৈঠকে বললেন মন্ত্রী মানস ভুঁইয়া, পরিত্যক্ত পিপিই কিট পরে শহরের রাস্তায় ঘুরছে মানসিক ভারসাম্যহীন, আতঙ্ক মেদিনীপুরে, জনপ্রিয় অভিনেতা বর্তমানে মাছ ব্যবসায়ী, হলফনামা জমা দেবার ক্ষেত্রে জরিমানা দিতে হল পাঁচ হাজার টাকা, আজ ঘোষণা হতে পারে নারদ মামলার রায়, বুধবার থেকে পনেরো শতাংশ ভাড়া বাড়ছে ওলা উবেরের,

Latest Trending Online News Portal : Bongobani.com

Sports News District News National News Updates

রাজ্য

“বিভাজনের পক্ষে নই”, জানিয়ে দিলেন দিলীপ ঘোষ

বঙ্গবাণী ব্যুরো নিউজ: বঙ্গভঙ্গের দাবিতে নড়েচড়ে বসেছে রাজনৈতিক মহল। এবার বঙ্গভঙ্গ নিয়ে দিলীপ ঘোষও স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন তার বক্তব্য।

উত্তরবঙ্গকে পশ্চিমবঙ্গের থেকে বিচ্ছিন্ন করে আলাদা একটি রাজ্য হিসেবে দেখতে চায় উত্তরবঙ্গবাসীরা এমনই আবেদন জানিয়েছিলেন জন বার্লা। তার অভিযোগ ছিল উত্তরবঙ্গ দীর্ঘদিন ধরে উন্নয়নের থেকে বঞ্চিত, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী উত্তরবঙ্গবাসীদের কথা শোনেন না। এদিন সকালে দিলীপ ঘোষ জানিয়েছেন, “বাংলা ভাগ করার কথা কে বলছে! পাহাড়ে আন্দোলন হয়েছে। সেখানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছিলেন, সবই রাজনীতি। আমরা কখনও এসব সমর্থন করি না। বিভাজনের পক্ষে নই।” জন বার্লার আবেদনের কথা এড়িয়ে গিয়ে তিনি জানিয়েছেন, “বিজেপি এ ধরনের কোনো দাবিতে বিশ্বাস করে না। আমরা এটা মানি না।” গতকালই রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় সাতদিনের সফরে উত্তরবঙ্গ গেছেন। রাজ্যপালের প্রশ্ন বঙ্গভঙ্গ নিয়ে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী চুপ কেন? উত্তরবঙ্গে অর্থনৈতিক বিকাশের অনেক সুযোগ রয়েছে, তাই এই নিয়ে মাননীয়াকে আলোচনায় বসার পরামর্শ দিয়েছেন মাননীয় রাজ্যপাল। অন্যদিকে বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, জঙ্গলমহল এলাকা নিয়েও পৃথক রাজ্য গঠনের দাবি তুলেছেন বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। তিনি বলেছেন, “পশ্চিমবঙ্গবাসী হিসেবে বলবো, মুখ্যমন্ত্রী যেভাবে বহিরাগত শব্দ এনেছেন, তাতে দাবি উঠবেই। কালীঘাটে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়ি থেকে পঞ্চাশ কিলোমিটারের মধ্যে তেইশজন মন্ত্রী রয়েছেন। আর আমাদের এলাকার মানুষ বঞ্চিত। রাঢ়বঙ্গের যুবকদের চাকরি নেই। আমাদের এলাকার সম্পত্তি রাজ্যের কোষাগারে যাচ্ছে। কিন্তু আমরা কিছু পাচ্ছিনা। আগামী দিনে রাঢ়বঙ্গ থেকেও দাবি উঠবে।”

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *