হুল উৎসব থেকে তির-ধনুক নিয়ে হামলা, তিরবিদ্ধ উপ-প্রধানের ভাই, শালবনি কোবরা ক্যাম্পে জওয়ানের আত্মহত্যা, করোনায় মৃতদের পরিবারকে দিতে হবে ক্ষতিপূরণ, কেন্দ্রকে নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের, কসবা কাণ্ডে অভিযুক্ত দেবাঞ্জন দেবকে মনোরোগী বলে দাবি করলেন আইনজীবী, বালি তোলা সহ নানা সমস্যার সমাধান করতে হবে বৈঠকে বললেন মন্ত্রী মানস ভুঁইয়া, পরিত্যক্ত পিপিই কিট পরে শহরের রাস্তায় ঘুরছে মানসিক ভারসাম্যহীন, আতঙ্ক মেদিনীপুরে, জনপ্রিয় অভিনেতা বর্তমানে মাছ ব্যবসায়ী, হলফনামা জমা দেবার ক্ষেত্রে জরিমানা দিতে হল পাঁচ হাজার টাকা, আজ ঘোষণা হতে পারে নারদ মামলার রায়, বুধবার থেকে পনেরো শতাংশ ভাড়া বাড়ছে ওলা উবেরের,

Latest Trending Online News Portal : Bongobani.com

Sports News District News National News Updates

রাজ্য

কমিশনের নির্দেশে আবারও নজরবন্দি অনুব্রত

বঙ্গবাণী ব্যুরো ডেস্ক : গরুপাচার কান্ডে এদিন অনুব্রত মন্ডল হাজিরা দেননি কলকাতার নিজাম প্যালেসের সিবিআই দপ্তরে। কোভিড পরিস্থিতির পাশাপাশি ভোটের প্রসঙ্গ তুলে এড়িয়েছেন হাজিরা। তারই মধ্যে কমিশনের নজরদারির নির্দেশ। বীরভূম জেলায় ভোট শুরুর ১২ ঘন্টা আগেই অনুব্রত মন্ডলকে নজরবন্দি করার  নির্দেশ জারি করল নির্বাচন কমিশন। বুধবার বিকাল ৫ টা থেকে ৩০ এপ্রিল সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত থাকবে এই নজরদারি। কমিশনের এই নির্দেশ ঘিরে কার্যত শোরগোল পড়ে গেছে রাজ্যের রাজনৈতিক মহলের অন্দরে। এদিন সিবিআইয়ের  তদন্তে হাজির না হওয়ায় পরেই কমিশনের পক্ষ থেকে এই পদক্ষেপ গ্রহণে তৃণমূলের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই অভিযোগ করা হয়েছে গেরুয়া শিবিরের কথায় চলছে কমিশন। খোদ দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়  বলেন, ‘কমিশন বিজেপির হয়ে কাজ করছে এর থেকে আরও বড় কোন প্রমাণের দরকার হয় নাকি?

রাজ্যজুড়ে চলছে ভোটযুদ্ধ। মোট অষ্টম দফায় নির্বাচনের শেষ পর্ব ২৯ এপ্রিল। হাতের তালুর মতো চেনা যার বীরভূমের প্রতিটি আনাচ কানাচ যাঁর। তাঁকেই ভোটের আগে পুলিশ প্রশাসনের নজরে থাকতে হবে।  ভোটের দিন বাড়ির বাইরে পা রাখতে পারবেন না তিনি এমনটাই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে কমিশনের তরফে। ভোটের আগেই কমিশনের  এরূপ সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ অনুব্রত মন্ডল। তিনি শুধু জানিয়েছেন, ‘খেলা হবে।’ সূত্রের খবর কমিশনের নির্দেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হতে চলেছেন তিনি। এদিন তিনি বলেন, ‘কমিশনের এটা রুটিন মাফিক ডিউটি। বীরভূমে শান্তিপূর্ণ ভাবেই নির্বাচন হবে, খেলাও হবে’।

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ক্ষেত্রেও একইভাবে নজরবন্দি অবস্থায় বাড়িতে বসেই ভোট পরিচালনা করেছিলেন বীরভূমের ‘কেষ্টদা’। ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনে দল তাঁর উপরে অনেকখানিই ভরসা রেখেছে।  তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এ প্রসঙ্গে বলেন,‘বীরভূম শান্তির জায়গা, কিন্তু বীরভূমের ওপর কমিশনের রাগ অনেক দিনের । প্রতিবার ভোটের আগে কেষ্ট কে তাই ওরা নজরবন্দি করে রাখার নির্দেশ দিচ্ছে। নজরবন্দি করে রাখা অবৈধ ও অপরাধ। কেষ্ট কে বলেছি এ বিষয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হতে।’

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *