Latest Trending Online News Portal : Bongobani.com

Sports News District News National News Updates

রাজ্য

ভবানীপুরেও মমতার বিরুদ্ধে সিপিএমের প্রার্থী মীনাক্ষী !

বঙ্গবাণী ব্যুরো নিউজ: একুশের বিধানসভা নির্বাচনে‌ নন্দীগ্রামে দুই হেভিওয়েট প্রার্থীর বিপরীতে দাঁড়িয়ে জয় লাভ করতে না পারলেও সকলের কাছে এখন পরিচিত মুখ সিপিএমের মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়। অসাধারণ বক্তৃতার গুণে তিনি পৌঁছে যান সকলের কাছে।তাই আবারও উপনির্বাচনে মীনাক্ষীকেই মমতা ব্যানার্জির বিপক্ষীয় প্রার্থী হিসেবে দেখতে চায় আলিমুদ্দিনের একাংশ।

বিধানসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর অনেকেই এই ফলের জন্য দুষে ছিলেন বাম জোট কে। যদিও করোনা অতিমারীর বিধি-নিষেধের কারণে এই খারাপ ফলের কারণ অনুসন্ধান জেলা স্তরে করা হলেও রাজ্যস্তরে বৈঠক বসানো যায় নি ‌। আর এরইমধ্যে মীনাক্ষীকে ভবানীপুরের প্রার্থী করা নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক। যদিও ভোটের শর্ত অনুযায়ী ভবানীপুর কংগ্রেসের আসন। তাই সেখানে দলের যুব সভাপতিকে প্রার্থী করে  বিধানভবন। কিন্তু বাম নেতাদের একাংশ এই উপনির্বাচন জোট লড়াইয়ের পক্ষপাতী নয়। তারা চায় সেখানে  জোট ভেঙ্গে পার্টি একাই লড়ুক।তাই তারা ভবানীপুরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে মীনাক্ষী মুখার্জিকে প্রার্থী হিসাবে দেখতে চায়।

যদিও এই যুক্তির বিপক্ষে পার্টির আরেকটি অংশ বলে মীনাক্ষীকে বারবার মুখ্যমন্ত্রীর সামনে ফেলে দিলে ‘গবেষণাগারে গিনিপিক’ করা হবে।  সেখানে মীনাক্ষীর যে পরবর্তীকালে পার্টির মুখ হয়ে ওঠার সম্ভাবনা আছে তাতে তার বাধা আসবে। তাই কলকাতার কোন পরিচিত মুখ কে প্রার্থী করা হোক। এবং আরেকটি দিক হলো জেলার প্রার্থী,  জেলা নেতৃত্বকে ঠিক করতে দেওয়া উচিত। সেক্ষেত্রে জোর করে প্রার্থী চাপিয়ে দেওয়ার বদনামও আলিমুদ্দিনের উপর আসবে না। ভোটের আশাহত ফলাফলের পর থেকেই কংগ্রেস ও আব্বাস সিদ্দিকীর ইন্ডিয়ান সেকুলার ফন্টের সাথে একতরফা জোট নিয়ে গুঞ্জন শুরু হয়েছে। এবং ভোটে প্রার্থী নির্বাচনে আলিমুদ্দিনের হস্তক্ষেপ নিয়েও অভিযোগ ওঠে।

প্রসঙ্গত, নন্দীগ্রাম থেকে বিধানসভা নির্বাচনে পরাজয়ের পর মুখ্যমন্ত্রী পদটি রাখার জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আবার একটি কেন্দ্র থেকে জিতে আসতে হবে। তাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে‌ জায়গা ছেড়ে দিতে ভবানীপুরের বিধায়ক শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় ইস্তফা দিয়েছেন। শোভনবাবু খরদা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী প্রয়াত কাজল সিনহার আসনটি থেকে প্রার্থী হতে পারেন বলে তৃণমূল সূত্রের খবর।

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *