Latest Trending Online News Portal : Bongobani.com

Sports News District News National News Updates

জেলা

বিজেপি প্রার্থীকে মিষ্টি খাওয়ালেন জুন মালিয়া

বঙ্গবাণী নিউজ, পশ্চিম মেদিনীপুর:  গোটা রাজ্য জুড়ে যখন হিংসার অভিযোগ করছেন বিরোধী নেতৃত্ব, ঠিক তখন ফুল-মিষ্টি নিয়ে মেদিনীপুরের প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপি প্রার্থীর বাড়িতে গিয়ে সৌজন্যের রাজনীতির নজির গড়লেন জুন মালিয়া। বুধবার তৃতীয় বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই সময় বিভিন্ন জেলায় তৃণমূলের জয়ী প্রার্থীরা উপস্থিত থেকে স্ক্রিন লাগিয়ে দেখলেন শপথ গহণ অনুষ্ঠান। মেদিনীপুর শহরের ফেডারেশোন হলের বাইরে এমনই এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল তৃণমূল কংগ্রেস। সেখানে অধিকাংশ জয়ী তৃণমূল প্রার্থী উপস্থিত ছিলেন। মেদিনীপুরের জয়ী তৃণমূল প্রার্থী জুন মালিয়া, ডেবরার জয়ী প্রার্থী প্রাক্তন আইপিএস হুমায়ুন কবীর, দীনেন রায়, অজিত মাইতি, মমতা ভুঁইয়া সহ অন্যান্যরা।  

শমিত দাস কে মিষ্টিমুখ করাচ্ছেন জুন মালিয়া

এদিন সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠান শেষে মমতা বন্দ্যোপধায়ের শপথ গ্রহন অনুষ্ঠানের সময়  মেদিনীপুরে সৌজন্যের রাজনীতি দেখিয়ে নজির গড়লেন জুন মালিয়া। মুখ্যমন্ত্রীর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান শেষ হতেই, মেদিনীপুর কেন্দ্রের তৃণমূলের বিজয়ী প্রার্থী জুন মালিয়া ফুল ও মিষ্টি নিয়ে চলে গেলেন প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপি প্রার্থী শমিত কুমার দাশের বাড়িতে। শুভেচ্ছা বিনিময়ের পর দু’জনে দু’জনকে মিষ্টি মিষ্টি খাওয়ালেন। বেরিয়ে আসার সময় জুন মালিয়া বললেন, ‘ভাই ফোটার সময় আবার আসবো।’ 

ভোটের ফল ঘোষোনার পর যখন রাজ্য জুড়ে যখন আক্রমণ, পাল্টা আক্রমণের  অভিযোগ উঠে আসছে বিরোধীদের গলায়, ঠিক তখন মেদিনীপুরে হিংসা বন্ধ করার জন্য বিজেপি প্রার্থীরও সহযোগিতা চায়লেন জুন মালিয়া। জুন মালিয়া বলেন, ‘আমরা সবাই মিলে এলাকার শান্তি বজায় রাখাতে চাই। আমি টুটুল’দার বাড়িতে এলাম। এলাকায় যাতে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় থাকে তাঁর আবেদন করলাম। আমি এখন সাধারণ মানুষের বিধায়ক। এলাকার উন্নয়ন একা করা করা যায় না। আমরা সবাই মিলে একসাথে এলাকার উন্নয়ন করবো।

জুন মালিয়ার এমন সৌজন্যে দেখে খুশি বিজেপির পরাজিত প্রার্থী শমিত দাস। তিনি বলেন, ‘এর আগে প্রচারের সময়ও আমার সঙ্গে দিদির দেখা হয়েছিল। আমি জুনদির অভিনয় পছন্দ করি। রাজনৈতিক মতাদর্শ আলাদা হতেই পারে। মানুষ হিসেবে আমাদের মধ্যে কেন সৌজন্য থাকবেনা? উনি জিতেছেন। আবাদন করছি এলাকায় শান্তি বজায় রাখার জন্য। এলাকায় শান্তি বজায় রাখার জন্য আমাদের দলের পক্ষ থেকে সব রকম সাহায্য করবো।’

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *