Latest Trending Online News Portal : Bongobani.com

Sports News District News National News Updates

ফাইল চিত্র
জেলা

রাজ্যের বিপর্যয়ের মুখেও অসাধু চক্রের হদিশ কলকাতা পুলিশের

বঙ্গবাণী ব্যুরো ডেস্ক:একদিকে রাজ্যজুড়ে বাড়ছে করোনার প্রকোপ অন্যদিকে অক্সিজেন, ওষুধ না পেয়ে দৈনিক হয়রানির শিকার হচ্ছেন বহু মানুষ। টাকা থাকলেও জিনিস কিনতে পারছেন না রোগীর পরিবারের সদস্যরা ।এই ভয়ঙ্কর দুর্ভিক্ষের মধ্যেও রাজ্যের কিছু অসাধু ব্যবসায়ীরা ফেঁদে বসেছিল কালোবাজারি ।এতদিন বেশ রমরমিয়েই চলছিল তাদের সেই বাজার।বেশ কয়েকদিন ধরেই এই বিষয় নিয়ে কলকাতা পুলিশের কাছে বারবার অভিযোগ জমা পড়ছিল শহরের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে।অবশেষে, কলকাতা পুলিশের তৎপরতায় সেই সমস্ত অসাধু ব্যবসায়ীদের কালোবাজারি চক্র ফাঁস করা সম্ভব হল গতকাল । পুলিশ সূত্রের খবর অনুযায়ী, এই সমস্ত অসাধু ব্যবসায়ীরা করোনার ওষুধ রেমডেসিভির বাজারমূল্যে থেকে অত্যাধিক বেশি মূল্যে মুমূর্ষ করোনা রোগীর পরিবারের কাছে অনলাইন মারফৎ বিক্রি করছিলেন। যেখানে রেমডিসিভির একটি ফাইলের দাম আসলে যেখানে ৩০০০ টাকা সেখানে তারা এক একটি ওষুধের ফাইল ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকায় বিক্রি করছিলেন। শুধু এখানেই তারা থেমে ছিলেন না, রাজ্যজুড়ে যেখানে অক্সিজেনের হাহাকার চরম পর্যায়ে সেখানে এই সমস্ত অসাধু ব্যবসায়ীরা অক্সিজেন নিয়েও কালোবাজারি চালাতে পিছপা হননি । এক একটি অক্সিজেনের সিলিন্ডার পিছু ২২ থেকে ২৫ হাজার টাকায় তারা বিক্রি করছিলেন নিরুপায় কিছু সাধারণ মানুষের কাছে ।

গত ২৪ এপ্রিল ,গভীর রাত্রে পুলিশের এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চের ফুয়েল সেকশনের ওসি সৌরভ ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে পুলিশ বাহিনীর একটি বিশেষ টিম মানিকতলা অঞ্চলে তল্লাশি চালায় এই সমস্ত অসাধু ব্যবসায়ীদের সন্ধানে। প্রথমে যেখানে তাঁরা এই কালোবাজারির সন্ধান খুঁজে পান সেখান থেকে উদ্ধার করে ১৩ অক্সিজেনের ভর্তি সিলিন্ডার এবং ২ টি খালি সিলিন্ডার। এরপরে অন্যান্য ব্রাঞ্চের পুলিশ আধিকারিকদের তৎপরতায় শহরের আরও অনেক জায়গায় তল্লাশি চালিয়ে উদ্ধার করা হয় ৪৮ টি ভর্তি অক্সিজেন সিলিন্ডার এবং ৬ টি খালি সিলিন্ডার ।অভিযুক্তদের ইতিমধ্যেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে । তবে কালোবাজারি চক্রে যে সমস্ত অক্সিজেন এবং ওষুধ পুলিশ সংগ্রহ করেছে এখনও পর্যন্ত তা কোভিড হাসপাতালগুলিতে বিনামূল্যে বিতরণ করে দেওয়ার জন্য পুলিশের তরফ থেকে আদালতের কাছে আবেদনপত্র পাঠানো হয়েছে বলেই জানা যাচ্ছে।

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *