Latest Trending Online News Portal : Bongobani.com

Sports News District News National News Updates

জেলা

পিংলায় কলেজ ছাত্রীর বিবস্ত্র ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য

বঙ্গবাণী ব্যুরো ডেস্ক:এক ২১ বছর বয়সী কলেজ ছাত্রীর বিবস্ত্র ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য। ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুরের পিংলা থানার জামনা গ্রামে। ওই ছাত্রীর বাড়ির চৌহদ্দির মধ্যেই এই ঘটনা ঘটেছে। অভিযোগ, ধর্ষন করে খুন করা হয়েছে তাকে। সোমবার বিকেলে দেহ উদ্ধার হয়। পুলিশ এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় এক মহিলা সহ তিন জনকে আটক করেছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতা ছাত্রী স্থানীয় ডেবরা ক্ষুদিরাম স্মৃতি মহাবিদ্যালয়ের দ্বিতীয় বর্ষের পড়ুয়া। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার দুপুর আড়াইটা থেকে তিনটার মধ্যে কারন সাড়ে তিনটা নাগাদ ওই মেয়েটির খোঁজ শুরু করে পরিবার। মৃতার বাবা জানিয়েছে, ‘দুপুরে আমি, আমার স্ত্রী এবং মেয়ে মিলে একই সাথে খাবার খেয়েছি। এরপরই আমার মেয়ে আমার কাছে সাবান চায়। সেই সাবান নিয়ে সে বাড়ির পেছনের দিকে বাসন ধুতে চলে যায়। আমিও বাজারের দিকে চলে যাই। দুপুর সাড়ে তিনটা নাগাদও মেয়ে ফিরছেনা দেখে খোঁজ শুরু হয় কিন্তু কোথাও তার খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিলনা।

এক প্রতিবেশী জানান, ‘একবার সাবমার্শেল পাম্প চালিয়ে আমরা সবাই বাসনপত্র ধুয়েনি আমরা। সেই বাসন ধুয়ে আমিও আসার একটু পরেই দিদি (মেয়েটির মা) আমাকে জানান ওকে পাওয়া যাচ্ছে না। মেয়ের কাছে সব সময় ফোন থাকত কিন্তু এদিন ফোন করার পর দেখা যায় ফোনটি সে বাড়িতেই ফেলে রেখে গেছে। খুঁজতে খুঁজতে পিছনে পুরানো মাটির বাড়ি ভেঙে তার দেওয়াল ইট দিয়ে গাঁথা হচ্ছিল। সেই কাজে নিযুক্ত ছিল ২জন পুরুষ এবং একজন মহিলা। ছাত্রীকে খুঁজতে খুঁজতে ওই ঘরের মধ্যে মেয়ের মা ঢুকে দেখতে পায় বিবস্ত্র অবস্থায় ঝুলছে মেয়েটি। শরীরের কিছু অংশে রয়েছে রক্তের দাগ। ঘটনা দেখার পর সজ্ঞা হারান ছাত্রীর মা ।

এদিকে ঘটনার খবর জানতে পেরেই ভিড় করে আশেপাশের মানুষ। তাঁরাই আটকে রাখে ওই তিন দিন মজুরকে। পুলিশ জানিয়েছে, ওই ছাত্রীর অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে ঠিকই কিন্তু তার আগে ধর্ষণ করা হয়েছে কী না, একজন নাকি একাধিক ব্যক্তি ধর্ষণ অথবা খুনের সঙ্গে যুক্ত কীনা এসব তদন্তের পরই জানা যাবে। ডাক্তারি পরীক্ষা এবং ময়নাতদন্ত ছাড়া এখনই পুলিশের পক্ষে কিছু বলা সম্ভব নয়।

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *