Latest Trending Online News Portal : Bongobani.com

Sports News District News National News Updates

জেলা রাজ্য

প্রত্যেক রোগীদের বাড়ি আমারও বাড়ি, বলেন ডাক্তার রাজেশ কুমার

বঙ্গবাণী ব্যুরো নিউজ :করোনা আবহে গোটা দেশ বিপর্যস্ত। সাধারণ মানুষের অনেকেই হারিয়েছেন অর্থ উপার্জনের উপায়, রোজ দুমুঠো অন্নের যোগান করা কারোর পক্ষে মুশকিল হয়ে উঠেছে। এমন আকালে যখন মানুষদের ছুটতে হচ্ছে হাসপাতাল থেকে অফিস, মিলছেনা ভ্যাকসিন এবং ডাক্তার, সেইসময় সামনে উঠে এল বয়স ৪৬ এর ডাক্তার রাজেশ কুমার চেলের কথা। কলকাতায় আমরি, আইএলএস এর মতন মোট চারটি বড়ো হাসপাতালের সাথে যুক্ত তিনি। ইনি হলেন সেই ডাক্তার যিনি প্রত্যেক রোগীদের মধ্যে নিজের মা-বাবাকে খুঁজে পান। স্বাভাবিক ভাবে যথেষ্ট ব্যস্ত মানুষ তিনি, প্রায় প্রত্যেক মিনিটেই কখনও হাসপাতালের ফোন বা কখনও রোগীদের পরিবারের ফোন। কিন্তু শত ব্যস্ততার মাঝেও তিনি তাঁর সময় বাঁচিয়ে রাখেন রোগীদের জন্যে। তাঁর একটাই ধারণা, রোগীদের কেউ তাঁর বাবা মা হলে কি তিনি ফেলে রাখতে পারতেন?

ডঃ রাজেশ কুমার চেল

তাই কাজ এবং ইচ্ছাশক্তিকে সম্মান জানিয়ে তিনি প্রত্যেকদিন ৮-১০ জন রোগীকে তাদের বাড়িতে গিয়ে দেখবেনই। যদিও এই মহামারী কালে বাড়িতে ডাক্তার নিজে এসে দেখা ভাগ্যের ব্যাপার। ডাক্তার রাজেশ কুমার চেল বলেন ” আমি রোগীদের বাড়িতে গিয়ে চিকিৎসা করলে রোগীর সাথে তাঁর বাড়ির লোকজনের চিন্তাও অনেকটা কমে যায়। রোগীদের সাথে তাঁদের বাড়িতে ছোটো আড্ডাও বসানো যায় যা মানসিক শান্তি দেয় হাজার কাজের মাঝে। ডাক্তারি জীবনের প্রথমে তিনি সিপিআইএম নেতা জ্যোতি বসুর চিকিৎসার কাজেও নিযুক্ত ছিলেন।

ডাক্তার চেল দাবি করেন এখন অন্তত পক্ষে সল্টলেকের প্রায় ৪০০০ পরিবারের সাথে তাঁর চেনা পরিচয় হয়ে আছে। লকডাউনের মাঝে সর্বহারা মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছেন অভিনেতা থেকে শুরু করে বেশ কিছু মানুষ। এমন সময়ে ডাক্তারদেরও এভাবে এগিয়ে আসাটা বেশ প্রশংসনীয় ।

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *