Latest Trending Online News Portal : Bongobani.com

Sports News District News National News Updates

দেশ

সোনু সুদ : অসহায়ের সহায়, অভুক্তের সম্বল

বঙ্গবাণী ব্যুরো নিউজ :পেশায় রূপোলি পর্দার অভিনেতা। নেশা মানবসেবা। মানবিকতার আদর্শকেই সঙ্গী করে করোনা অতিমারী পরিস্থিতিতে পালন করে গেছেন সাধারণ নাগরিক কর্তব্যগুলি। যা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে এই পরিস্থিতিতে দেশের সরকারের ব্যর্থতা এবং বেশ একটা বড় অংশের মানুষের মানুষ হয়ে ওঠার ব্যর্থতাকে। কার কথা বলা হচ্ছে তা নিশ্চয়ই আর বলার অপেক্ষা রাখে না। রূপোলি পর্দার চেনামুখ, দক্ষিনী অভিনেতা, ‘খলনায়ক’ সোনু সুদ।

যে দেশে মানুষের অসহায়তার সুযোগ নিচ্ছে তারই সহ নাগরিকরা, বেসরকারি হাসপাতালে বেডের দাম এক ধাক্কায় সাধারণের চেয়ে বেড়ে গেছে অনেক গুণ। রিমিডিসিভির সহ জীবনদায়ী ওষুধগুলি কালোবাজারি হচ্ছে প্রায় ৩০-৪০ হাজার টাকায়। আর সেখানেই প্রতিনিয়ত নিজের সবকিছু বাজি রাখছেন কিছু অসহায় মানুষ তার কাছের মানুষটিকে বাঁচানোর জন্য । কেউ পারছেন ।কেউ পারছেন না। অক্সিজেনের অভাবে শ্বাসরোধ হয়ে মৃত্যু হচ্ছে মানুষের, সৎকারের অভাবে শয়ে শয়ে মৃতদেহ ভাসিয়ে দেওয়া হচ্ছে গঙ্গায়। সেই দেশেই কুড়ি হাজার কোটি টাকা দিয়ে তৈরি হচ্ছে সেন্ট্রাল ভিস্টা প্রজেক্ট।

ঠিক তখনই সোনু সুদের মত ‘খলনায়ক’ অসহায় মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। সমস্যা শোনার আগেই সমাধান পৌঁছে দিয়েছেন। খিদে পাওয়ার আগেই অভুক্তদের মুখে তুলে দিয়েছেন খাবার। ধীরে ধীরে হয়ে উঠেছেন ‘করোনা কালের মসিহা’।

কিভাবে শুরু করেছিলেন তিনি?সোনু সুদ একটি ফাউন্ডেশন তৈরী করে গত বছর লকডাউনে আটকে পড়া দেশের কয়েক হাজার পরিযায়ী শ্রমিককে বাড়ি পৌঁছে দিয়েছেন। লকডাউনে কাজ হারানো কয়েকশো গ্রামে খাবার পাঠিয়েছেন। অসহায় মানুষদের ওষুধ এবং চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছেন। নিজের সম্পত্তি বন্ধক রেখে সেই টাকা বিলিয়ে দিয়েছেন অসহায় মানুষের মধ্যে। সম্প্রতি একটা ভিডিও তে দেখা গেছে বাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে থাকা এক বৃদ্ধা এবং ক্রন্দনরত যুবকের সমস্যা শুনেই তৎক্ষণাৎ ব্যবস্থা করেছেন তাদের চিকিৎসার।

শুধু তাই নয়! দেশব্যাপী অক্সিজেনের অভাব মেটাতে বিদেশ থেকে আনাচ্ছেন অক্সিজেন । আর এই কাজে এগিয়ে আসতে উদ্বুদ্ধ করছেন হাজার হাজার ছেলেমেয়েকে। যারা দেশের বিভিন্ন প্রান্তে নিজেদের মতো করে অনেক মানুষকে জিতিয়ে দিচ্ছে করোনা যুদ্ধে।তাই মানুষ তার কাজকে অসাধারণত্বের তকমা দিয়ে তার ছবিতে দুধ ঢাললেও, তিনি সাংবাদিক থেকে অসহায় মানুষ প্রত্যেকের প্রতি মানবিক আচরণ, অভুক্ত মানুষের পেটের খাবার, অসুস্থ মানুষের চিকিৎসা ইত্যাদিকে একজন সাধারণ ভারতীয় নাগরিকের কর্তব্য রূপেই স্বীকার করেছেন।

করোনার প্রকোপে অসহায় মানুষের সহায় এবং সম্বল হয়ে ওঠা মানুষটা ভারতবাসীকে কীভাবে যেন ঋণী করে রেখে দিল নিজের কাছে। কেউ তাঁকে পুজো করছেন কেউ বা ছবিতে দুধ ঢেলে তাঁর সম্মান করছেন। অভুক্ত হোক বা মেধাবী ছাত্র, গরীব চাষী হোন বা অসুস্থ মায়ের চিকিৎসা, সোনু সুদের কাছে মানুষের সমস্যা পৌঁছালেই সমাধান অনিবার্য।

এহেন একজন রূপোলি পর্দার ‘খলনায়ক’ থেকে বাস্তবের ‘নায়ক’ হয়ে ওঠার এই যাত্রা আপামর ভারতবাসীর মনে থেকে যাবে আজীবন।

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *